২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

কাবা শরিফে ওমরাহকারীদের জন্য থাকবে ৭৫০ গাইড

আপডেট: এপ্রিল ২১, ২০২১

ধর্ম ডেস্ক ।। মহামারি করোনার এ সময়ে ওমরাহ পালনকারীদের সঠিক পথ নির্দেশনা দিতে কাবা শরিফে ৭৫০ জন গাইড নিয়োজিত করেছে। কাবা শরিফ ও মদিনার মসজিদে নববির প্রধান পরিচালনা কর্তৃপক্ষ করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করার দায়িত্বও দেয়া হয়। খবর আল-আরাবিয়া।

জেনারেল প্রেসিডেন্সির জনসমাগম নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক প্রশাসনিক পরিচালক ওসামা আল-হুজাইলির বরাতে আরব আমিরাতভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-আরাবিয়ায় প্রকাশিত খবরে এই তথ্য জানানো হয়।

ওসামা আল-হুজাইলি বলেন, এই ৭৫০ জন গাইড মসজিদুল হারাম তথা কাবা শরিফ জেয়ারতে আসা ব্যক্তিদের ২৪ ঘণ্টা সহায়তা করবে। ওমরাহ পালনের সময় তাদের যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও দিকনির্দেশনা দেবে গাইডাররা। তাদের সহযোগিতায় আরও থাকবে জেনারেল প্রেসিডেন্সির বেসামরিক নিরাপত্তা প্রহরীদের পাঁচ শ’ সদস্যের শক্তিশালী একটি দল।

সৌদিআরবের হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, রমজানে কেউ মসজিদুল হারাম তথা কাবা শরিফ জেয়ারত বা ওমরাহ করতে চাইলে তাকে বাধ্যতামূলকভাবে করোনভাইরাস প্রতিরোধে টিকা নিতে হবে। এছাড়া স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চালু করা ‘তাওয়াক্কালনা’ অ্যাপের মাধ্যমে সুস্থতার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

মসজিদে হারামে ইবাদত ও ওমরাহ করার যাবতীয় শর্ত পূরণের পর প্রত্যেককেই হজ ও ওমরা মন্ত্রণালয়ের চালু করা ‘ই-তামারনা’ অ্যাপের মাধ্যমে আবেদন করে অনুমতি নিতে হবে।

উল্লখ্য, যথাযথ অনুমতি ছাড়া কেউ ওমরাহ পালনের জন্য গেলে তাকে সৌদি ১০ হাজার রিয়াল তথা বাংলাদেশী দুই লাখ টাকারও বেশি জরিমানার আইন জারি করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আর শুধু মসজিদুল হারামে প্রবেশ করলে তাকে সৌদি এক হাজার রিয়াল তথা বাংলাদেশী ২২ হাজার টাকারও বেশি জরিমানা গুণতে হবে।

335 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন